প্রতিদিনের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে শুরু করে ল্যাপটপসহ অন্যান্য ডিভাইস নিয়মিত ভাবে ব্যবহার চোখের জন্য বড় ক্ষতির কারণ হতে পারে। বিশেষ করে এ ধরনের ডিভাইস থেকে যে ধরনের নীল আলোর বিচ্ছুরন ঘটে সেটি ভয়ংকর রকম ক্ষতির কারণ হতে পারে ব্যবহারকারীদের। এমন মন্তব্য করেছেন গবেষকেরা।

যুক্তরাষ্ট্রের টোলেডো ইউনিভার্সিটির এক গবেষণায় বলা হয়, বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস (যেমন: মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট) থেকে যে পরিমান নীল আলোর বিচ্ছুরণ হয় সেটি চোখের জন্য বেশ ক্ষতিকর। এমন যন্ত্র চোখের খুব কাছে থাকলে চোখ অন্ধ হয়ে যেতে পারে বলেও মন্তব্য করেন গবেষকেরা। ইতিমধ্যে প্রতি সাত জনের একজন এ ধরনের চোখের সমস্যায় পড়তে শুরু করেছেন বলেও উল্লেখ করা হয়।
গবেষক দলের প্রধান ও ইউনিভার্সিটি অব টোলেডো’র ডা. অজিত করুনার্থন বলেন, আমরা ডিভাইস থেকে বের হওয়া নীল আলো নিয়ে পরীক্ষা করেছি। আমাদের পরীক্ষায় বের হয়েছে এ আলো চোখের খুব কাছে থাকলে চোখের কর্ণিয়া ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে।

এ ধরনের সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে খুব অন্ধকারে স্মার্টফোন, ল্যাপটপের মতো ডিভাইস ব্যবহার না করার অনুরোধ জানিয়েছেন গবেষকেরা। তাদের মতে, দিনের আলোয় এ নীল আলো তেমন ক্ষতিকর না হলেও রাতে যখন আলো না থাকে এবং শুধুমাত্র এ ডিভাইসগুলোর আলো থাকে তখন সেটি চোখের জন্য ক্ষতিকর। এবং ধারাবাহিক ভাবে যদি কেউ রাতের বেলায় এ ডিভাইসগুলো ব্যবহার করতে থাকেন তিনি চোখের আলোও হারাতে পারেন।

গবষেক দল পুরো বিষয়টি একটি জার্নালে প্রকাশ করেছেন। তাতে উল্লেখ করা হয়, ১৬-২৪ বছর বয়সীদের স্মার্টফোন থেকে শুরু করে নানা ধরনের ডিভাইস ব্যবহারের প্রবণতা বেড়েছে। এ বয়সী ব্যবহারকারীরা প্রতি সপ্তাহে ৩৪.৩ ঘন্টা ইন্টারনেটে কাটায় বলেও উল্লেখ করা হয়।